তীব্র শৈত্য প্রবাহে নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়ায় দুই শিশুর মৃত্যু

বাংলাবাজার পত্রিকা
জামালপুর: জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে তীব্র শৈত্য প্রবাহে নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়ায় দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে মঙ্গলবার রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সাতপোয়া ইউনিয়নের চর ছাতারিয়া গ্রামের স্বপন মিয়ার ছেলে ইয়াসিন আরাফাত (১) ও সরিষাবাড়ী পৌরসভার শিমলাপল্লী গ্রামের আল-আমিন হোসেনের ছয় মাস বয়সী শিশু আলিফ হাসান।

জামালপুরের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. কে এম শফিকুজ্জামান জানান, সাতপোয়া ইউনিয়নের চর ছাতারিয়া গ্রামের স্বপন মিয়ার ছেলে ইয়াসিন আরাফাত কোল্ড ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হলে মঙ্গলবার রাত ৮টায় সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

তিনি জানান, ভর্তির পর চিকিৎসকরা তাকে ২৫০ শয্যার জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করে। রেফার্ডের পর পরিবারের লোকজন শিশুটিকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে নিতে বিলম্ব করে। রাত ১০টায় জামালপুর নেওয়ার পথে শিশু ইয়াসিন আরাফাত মারা যায়।

এ ছাড়াও মঙ্গলবার রাতে সরিষাবাড়ী পৌরসভার শিমলাপল্লী গ্রামের আল-আমিন হোসেনের ছয় মাস বয়সী শিশু আলিফ হাসানকে মৃত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয় বলে নিশ্চিত করেন ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. কে এম শফিকুজ্জামান। তিনি জানান, ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে আলিফ মারা গেছে।

সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শফিকুল ইসলামের সাথে টেলিফোনে কথা বললে জানান, তিনি জামালপুর সিভিল সার্জন অফিসে এক সপ্তাহের প্রশিক্ষণে আছেন। হাসপাতালের দায়িত্বে আছেন আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. শাহেদ।

সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. শাহেদ জানান, বুধবার সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ডায়রিয়া ও নিমোনিয়া আক্রান্ত হয়ে ভর্তি ছিলো ১২ জন। আর ৩/৪ জন চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছে। এদের বেশিরভাগ শিশু।

জামালপুরের সিভিল সার্জন ডা. গৌতম রায় সাংবাদিকদের জানান, তীব্র শৈত্য প্রবাহে ঠাণ্ডাজনিত কারণে ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়াসহ বেশকিছু রোগের প্রকোপ দেখা দিয়েছে। কোল্ড ডায়রিয়া নামক রোগে শিশুরাই বেশি আক্রান্ত হচ্ছে।