নির্মাণকাজে বাধা হামলা মারধর, আহত শ্রমিক হাসপাতালে ভর্তি

বাংলাবাজার পত্রিকা
জামালপুর: বাবার বিক্রি করা জমি দাবি করে নির্মাণ কাজে বাঁধা দিয়ে শ্রমিকদের মারধর করেছে মির্জা আব্দুল বাসেত নামে এক ‌’ভূমি দস্যু’।

গুরুতর আহত নির্মাণ শ্রমিক জাহাঙ্গীরকে(৩০) জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে জামালপুর শহরের ছোটগড় এলাকায় বাইপাস সড়কের পাশে এ ঘটনা সংঘটিত হয়। এতে এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে লাঠিসোঠাসহ সন্ত্রাসীরা মোটরসাইকেলযোগে আতিকুর রহমান সুমনের নির্মাণাধীন বাড়িতে আসে।

মোটরসাইকেল থেকে নেমেই নির্মাণকাজে থাকা নির্মাণ শ্রমিকদের লাঠিসোঠা দিয়ে মারধর শুরু করে। এ সময় ভূমি মালিক সুমনকে পেলে জানে মেরে ফেলা হবে বলে প্রাণনাশের হুমকি দেয়।

সন্ত্রাসীদের হামলার শিকার নির্মাণ শ্রমিকদের মধ্যে গুরুতর আহত জাহাঙ্গীরকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নির্মাণ শ্রমিক জাহাঙ্গীর বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

ভূমি মালিক আতিকুর রহমান সুমন বলেন, ১৯৮১ সালে মির্জা বাসেতের বাবা মির্জা হাতেম আলী মিসেস গীতি রহমানের কাছে ৫৮. ৭৫ শতাংশ জমি বিক্রি করে। গীতি রহমান তার স্বামী মাহবুব উর রহমানকে হেবা ঘোষণাপত্র মূলে দলিল করে দেন।

আমার বড় ভাই মাহবুব উর রহমান আমাকে হেবা ঘোষণাপত্র মুলে দলিল করে ৫৮.৭৫ শতাংশ জমি। মির্জা হাতেম আলীর জমি বিক্রির দলিলও আমার কাছে রয়েছে।

আমার ক্রয়কৃত নিস্কন্টক জমির উপর বাড়ি নির্মাণ কাজ শুরু করি। অসৎ উদ্দেশ্যে নির্মাণ কাজের শুরু থেকেই বাবার বিক্রি করা জমি দাবি করে নানা সময় হুমকি ধামকি হামলাসহ নানা হয়রানী করে আসছে মির্জা বাসেত।

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে আমার নির্মাণাধীন বাড়িতে কাজরত অবস্থায় নির্মাণ শ্রমিকদের মারধর করে এবং আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়। এর আগেও একধিকবার হামলার ঘটনা ঘটিয়েছেন।

ভূমি মালিক আতিকুর রহমান সুমন বলেন, বাবা মির্জা হাতেম আলী বেঁচে থাকাবস্থায় তিনি ও তার পরিবারের কেউ এই জমি দাবি করেন নি।

মির্জা হাতেম মারা যাওয়ার পর বিক্রির আগের দলিল দেখে মির্জা বাসেত বাবার জমি দাবি করে আমিসহ তার বাবার বিক্রি করে যাওয়া ক্রয়সূত্রে ভূমি মালিকরা নানা হয়রানির শিকার হচ্ছে।

তার বাবা বিক্রি করার পরের দলিল এবং ভূমি আইনকানুন কিছুই মানতে চান না। এই ভূমিদস্যুর হাত থেকে রক্ষা এবং জীবনের নিরাপত্তার দাবি জানিয়েছেন ভূমি মালিক আতিকুর রহমান সুমন।

এ বিষয়ে মির্জা বাসেত বলেন, আমি হামলা মারধর করি নাই, শ্রমিক পড়ে গিয়ে আহত হতে পারে। আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ মিথ্য বানোয়াট সঠিক নয় বলে দাবি করেন তিনি।