ধনু নদের ভাঙনে অর্ধশত বাড়ি বিলীন

বাংলাবাজার পত্রিকা
নেত্রকোনা: নেত্রকোনার খালিয়াজুরীতে খরস্রোতা ধনু নদের ভাঙনে অর্ধশত বাড়ি বিলীন হয়ে গেছে। গত দুই বছরে অব্যাহত ভাঙনে ভিটে বাড়ি হারানো পরিবারগুলো অন্যের বাড়িতে এখন দুর্বিসহ দিন কাটাচ্ছে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান জানান, খালিয়াজুরীর পাঁচহাট চরপাড়া গ্রাম ঘেঁষে বয়ে চলছে ধনু নদ। এ নদের প্রবল স্রোতে গ্রামটির শামছুল হক, কামাল মিয়া, শরিফ মিয়া, কবির মিয়া, রফিকুল ইসলাম, খালেক মিয়াসহ ৫০ জনেরও বেশি পরিবারের বাড়ি বিলীন হয়েছে। ভাঙনের শিকার এ সবকটি পরিবারই খেটে খাওয়া হত দরিদ্র।

তিনি জানান, ওই ভাঙন বন্ধ না হলে কয়েকশ’ পরিবারের পুরো গ্রামই ক্রমান্নয়ে নদী গর্ভে হারিয়ে যাবে। তাই ভাঙন ঠেকাতে খননের মাধ্যমে নদের স্রোতধারা ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করার আবেদন করেছেন গ্রামবাসি।

প্রায় পাঁচ মাস আগে নৌ-পরিবহন মন্ত্রী বরাবর করা এক আবেদনে বলা হয়, প্রতিরক্ষা প্রাচীর দিয়েও খরস্রোতা ওই নদের হাত থেকে গ্রামটিকে রক্ষা করা সম্ভব হবে না।

তাই গ্রামটির অর্ধ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিম দিকে হাওরে এক কিলোমিটারের মতো খনন করলেই একদিকে গ্রামটি যেমন রক্ষা হবে। অন্যদিকে এ নদকে ঘিরে প্রতিনিয়ত লঞ্চ, কার্গো চলাচল করা নৌ-পথের একটি বড় বাঁকও সোজা হবে।

গ্রামটি পরিদর্শন করে খালিয়াজুরী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এ এইচ এম আরিফুল ইসলাম জানান, নদী ভাঙনের শিকার ওই ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে নির্মাণ প্রক্রিয়াধীন একটি গুচ্ছ গ্রামে পূনর্বাসনের চেষ্ট চলছে।

এছাড়া, গ্রামটির ভাঙন রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো হচ্ছে।