নাসিম সাহনিকের ‘আর্টিফিশিয়াল স্পাগিজ’

বাংলাবাজার পত্রিকা
ঢাকা: অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২০ উপলক্ষ্যে প্রকাশিত হয়েছে বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনীর লেখক নাসিম সাহনিকের নতুন বই ‘আর্টিফিশিয়াল স্পাগিজ’। এক দশক ধরে প্রতিবছর বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনীর বই প্রকাশ করছেন নাসিম সাহনিক। সায়েন্স ফিকশনপ্রেমী পাঠকের কাছে ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে এই লেখকের অভিনব কাহিনীগুলো।

তার প্রকাশিত বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনীর বইগুলোর মধ্যে রয়েছে মিশন ইমোশন (অনিন্দ্য), ল্যাঙ্গুয়েজ হান্টার (তাম্রলিপি), কক্সবাজারের কচ্ছপ ( রাত্রি), প্যাসিফিক ইন্টেলিজেন্স (অয়ন ), মিরর গেম (অয়ন) ইত্যাদি।

‘আর্টিফিশিয়াল স্পাগিজ’ বইটির কাহিনীতে দেখা যায়, স্প্যানিশ অঞ্চলের শহর মাদ্রিদে একটি মহাকাশযান ধ্বংস করেছে দুর্বৃত্তরা। রহস্যজনকভাবে সংঘটিত এই ঘটনা তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয় রানা দাসকে।

রানা দাস আর ওর দল লিবেরিয়ান পেনিনসুলা অঞ্চলে শুরু করে অভিযান। স্প্যানিশ মহাকাশযান অভিযাত্রী কারমেন আর পর্তুগীজ কমান্ডার পর্তুগীনা এই অভিযানে সহযোগিতা করে রানা দাসকে।

কিন্তু কোনোভাবেই সমাধান করতে পারছিলো না ওরা। প্রতিটি অভিযানেই নতুন নতুন সমস্যা উপস্থিত হচ্ছিলো। রানার বেড়ে ওঠা বাংলাদেশের মাগুরা আর ঢাকাতে। পড়াশুনা করেছে রসায়ন নিয়ে। তারপর নিরাপত্তা পরিষদে যোগ দেয় রানা। মস্কো, বেইজিং এবং কক্সবাজারে ট্রেনিং হয় রানার।

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার নিউরোকেমিস্ট্রি আর ইমোশন বিষয়ে বিশেষ ট্রেনিং রয়েছে তার। রানাকে এই অভিযানে দায়িত্ব দেয়ার পর লিবেরিয়ান পেনিনসুলা অঞ্চলেই বেশিরভাগ সময় কাঁটতে থাকে সে।

মস্কো থেকে ওর বান্ধবী অনুশকা এবং মঙ্গলে অবস্থানকারী বন্ধুরা ওকে অভিযানে সাহায্য করতে থাকে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে শত্রুদের হাতে অপহৃত হয় রানার বান্ধবী অনুশকা। আটলান্টিকের গভীরে এবং এই অঞ্চলে থাকা দ্বীপগুলোতে দু:সাহসিক অভিযান চালিয়ে রানা উদ্ধার করার চেষ্টা করে নিজের প্রেমিকা অনুশকাকে।

এর মধ্যে ল্যাটিন আমেরিকা অঞ্চলে অবস্থানকালে রানার মেমরি ইরেজ করে নিয়ে যায় শত্রু পক্ষ। এরকম জটিল পরিস্থিতিতে মনে হতে থাকে পৃথিবী এবং মহাকাশের বেশকিছু অঞ্চল যেন আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স গ্রুপের দখলে চলে যাবে।

এ বইটির বিষয়ে লেখক নাসিম সাহনিক বাংলাবাজার পত্রিকাকে বলেন, ‘নাটক ও চলচ্চিত্র নির্মাণ নিয়ে ব্যস্ত থাকলেও লেখালেখি আমার সবচেয়ে প্রিয় জায়গা।

তিনি বলেন, আমি প্রতিবছরই চেষ্টা করি পাঠকের জন্য নতুন নতুন গল্প উপহার দিতে। বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনীভিত্তিক এই উপন্যাসটি পাঠককে নিয়ে যাবে একেবারে অভিনব এক জগতে। ভবিষ্যতের পৃথিবী যেন চোখের সামনে দেখতে পাবেন পাঠকেরা।

আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স নিয়ে লেখা এই বইটি পাওয়া যাবে অমর একুশে বইমেলা ২০২০ এ অনিন্দ্য প্রকাশের ৩১ নং প্যাভিলিয়নে। বইটির মূল্য ১৫০ টাকা। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন ধ্রুব এষ।