রানা নাগের আমপারা সিরিজ

আমপারা দেখি-১ (ইখলাছ)
শুরু করি তার স্তুতি- যিনি সত্য ও জ্ঞেয়
বলে দাও সবাইকে, বল পাশের অজ্ঞানে-
তিনিইতো সেই যিনি বাইনারির প্রথম,
শূণ্যের বাইরে থেকেই অনন্য, অদ্বিতীয়।
অযোনী তিনিই আবার গোত্র বংশহীন
অনন্য তিনিই থাকেন, সদা ঋণহীন।

আমপারা দেখি-২ (ফাতিহা)
সকল প্রার্থনা শুরু পরম জ্ঞান নামে
নীহারিকার আত্মার শক্তি প্রশংসায় ভাসে।
অসীম সাগরে যিনি অনন্ত দয়া মায়া
শেষ দিনে মাপবেন তিনি পাপ পুণ্যের কায়া।
আমিতো দাস এক সাহায্যটা রাখো
চাই শুধু এতটুকুই, সোজা পথটা পাবো।
যে দিকে হেঁটে গেছেন তোমার প্রিয়জন
শাপের রাস্তাটা চাইনা, এই আমার মন।

আমপারা দেখি- ৩ (জিলজাল)
ভূমির কম্পন যেদিন সর্বত্রই হবে
ভেতরের সবকিছু বাইরে চলে আসবে,
বিভ্রান্ত মানুষ ভাববে এ কী হলো এর!
বর্ণিত হবেই সব, নাই হেরফের।
মহাপ্রভুর নির্দেশে এমনটাই হবে
কৃতকর্ম দেখতে মানুষ বহু দলে রবে,
দেখবে সবে যদি করে একটু খানি পূণ্য
অনু সমান পাপও দেখবে, হবেনাতো ভিন্ন।

আমপারা দেখি-৪ (কাফেরুন)
শুরুকরছি এ রচনা সেই পরমের নামে
অপার করুণা শুধুই থাকে যার নিত্য ধামে।
বলে দাও তাকে ওগো- যে সত্য ঢেকে রাখে,
তার পূজায় যে থাকে, সে নাই আমার মনে।
আমার উপাসনা যে, সে থাকেনা তার বুকে-
আমি কিছু চাইনা তার ঈশ্বরে,
সেওতো চাওনা কিছু আমার মহানে।
তুমি যা ধারণ কর তার ফল তোমার
আমার বোধ বিশ্বাস- একান্তই আমার।