ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের অভিযোগ, শিক্ষক স্ট্যান্ড রিলিজ

বাংলাবাজার পত্রিকা
নেত্রকোনা: সামাজিক মাধ্যমে ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের ঘটনায় অভিযুক্ত নেত্রকোনা সরকারি মহিলা কলেজের পদার্থ বিজ্ঞানের সহকারি অধ্যাপক রশিদ আহমেদ তালুকদারকে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া সরকারি কলেজে স্ট্যান্ড রিলিজ করা হয়েছে।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. ফরহাদ হোসন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বুধবার এই আদেশ দেয়া হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ সরকারি কলেজ ১ অধিশাখা পেডে জানানো হয় বৃহস্পতিবার মধ্যে বর্তমান কর্মস্থল হতে অবমুক্ত হবেন রশিদ আহমেদ।

অন্যথায় একই তারিখ অপরাহ্নে তাৎক্ষণিকভাবে অবমুক্ত মর্মে গণ্য হবেন। বুধবার বিকালে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েব সাইটে এই নোটিশ প্রকাশ করা হয়।

এর আগে গত সোমবার দুপুরে ছাত্রীদের ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে অভিযুক্ত শিক্ষকের পাঠানো আপত্তিকর লিখার বিভিন্ন স্ক্রিনশর্ট ভাইরাল হয়।

বিষয়টি ছাত্র-অভিভাবকদের নজরে আসলে এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন এলাকাবাসী। পরে সকলের উপস্থিতিতে কলেজের অধ্যক্ষ বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন এক ছাত্রী।

এ সময় এলাকাবাসী অভিযুক্ত ওই শিক্ষককে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ঘটনার সত্যতা মিলে। পরে তিনি হাত জোর করে ক্ষমা চান।

অভিযোগে জানা যায়, অভিযুক্ত শিক্ষক বেশ কয়েক মাস ধরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রীদের ফেইসবুক ম্যাসেঞ্জারে আপত্তিকর লিখা পাঠাচ্ছিলেন।

পরে ১০ ফেব্রুয়ারি এক ছাত্রী আপত্তিকর এ লিখার প্রতিবাদ করার পর একে একে বেরিয়ে আসে অন্যদের ইনবক্সের নানা কনভারসেশন।

অভিযোগের প্রাথমিক প্রমাণ পাওয়ায় কলেজের পরিবেশ সুষ্ঠ রাখতে কলেজ কর্তৃপক্ষ অভিযুক্ত শিক্ষকের এ অপকর্মের বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হলে তাৎক্ষণিক বদলির আদেশ আসে বলে জানান নেত্রকোনা সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর সিরাজুল ইসলাম।