তুমি ফিরে আসনি বলে

তুমি ফিরে আসনি বলে
-এস এম গোলাপ

শুধু তুমি ফিরে আসোনি বলেই,
এই বোহেমিয়ান কলঙ্কিত জীবন আমার; মাদকতার মনোবৈকাল্যে
চলছে পূর্ণগ্রাস আধাঁরের গ্রহণ কাল…।
আমি বাউন্ডুলে,ছন্নছাড়া,ভবঘুরে হয়ে বহুদিন,বহুপথ
হেটেহেটে বেড়িয়েছি একা।
কত যে ইমেজ ঝরে গেছে আমার ভালোবাসার অপুষ্টিতে।
ক্ষয়ে গেছি অন্তরে-বাহিরে, নিঃস্ব, রিক্ত, উদ্দামহীন হয়ে গেছি আমি
কালবেলার কৃষ্ণপক্ষে ঢেকে গেছে আমার জীবন,থমকে গেছি আমি।

শুধু তুমি ফিরে আসেনি বলেই,
চিরদিনের অপরাজেয় আমি পরাজয় মেনে নিয়েছি;
দূর্বল প্রতিদ্বন্দ্বির কাছেও আমি হার মেনেছি।
তারপর নিরব অভিমানে অন্তরালে চলে গেছি সবার অজান্তে।
কাউকে বলিনি কিছু, বুঝতে দেইনি এই গোপন অভিমান!
রৌদ্রদগ্ধ হয়ে গেছে আমার হৃদয়ের স্বদেশ ভূমি।

তুমি ফিরে আসোনি বলেই এই ব্যর্থতা এই পরাজয়।
দিনরাত হয়ে গেছে আমার এলোমেলো, আউলা বাউলা।
সবখানে থেকে যায় একটা না একটা হাহাকার….
তাই আমি ছন্নছাড়া,উড়ানচন্ডী, যাযাবর,
কান্না ছাড়া আর নেই কোন ঠিকানা আমার!
আমি সংসার পেতেছি ফুটপাতে নষ্ট জনের সাথে।
আমার বুকের মাঝে আজও অবিরাম জ্বলছে একুশটি ভিসুভিয়াস।

তুমি ফিরে আসোনি বলেই পিছনে পড়ে আছি,
কোথাও পাইনি ঠাই,সবার কাছে উপেক্ষিত হয়ে আছি আমি।
আমার অশ্বমেধের দুরন্ত দস্যিপনার যৌবন কাল আজ শুধুই অতিক্রান্ত অতীত।
বোহেমিয়ান বালকের জীবনসমগ্র অপাঠ্য হয়ে গেছে
কলঙ্কের কালিতে ঢেকে গেছে একাদশীর চাঁদ।
অস্পর্শ অচ্ছুৎ হয়ে গেছি সবার কাছে।
বহুবর্ষার জলে ভিজে গেছে অপেক্ষারত পোড়া চোখ
ভিতরে-বাহিরে আমার এই নিদারুণ ব্যর্থতা চলছে অবিরাম!
শুধু তুমি ফিরে আসোনি বলেই….!