আবার বাড়ছে করোনা

Corona-Virus

বাংলাবাজার পত্রিকা
ঢাকা: দীর্ঘদিন শনাক্তের হার ১০-১১-এর মধ্যে থাকলেও শীত আসার শুরুতেই এক লাফে ১৩ পার হয়ে গেছে। শীতে করোনা বাড়বে এমন হুঁশিয়ারি কার্যতই প্রমাণিত হচ্ছে।

আবার বাড়তে শুরু করেছে করোনা। এরই মধ্যে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

এ ছাড়া সাবেক আইজিপি একেএম শহীদুল হক সপরিবারে কভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়েছেন।
করোনার সেকেন্ড ওয়েভ ঠেকাতে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করেছে সরকার।

এ ছাড়া নো মাস্ক নো সার্ভিসও চালু হয়েছে।

অন্যদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এবং এ মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন পজেটিভ শনাক্ত হওয়ার পরদিন নেগেটিভ

এদিকে দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একদিনে আরও ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে, নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে আরও এক হাজার ৮৩৭ জন।

রোববার বিকেলে সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে দেশে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির এই সর্বশেষ তথ্য জানানো হয়।

সেখানে বলা হয়, সকাল ৮টা পর্যন্ত শনাক্ত এক হাজার ৮৩৭ জনকে নিয়ে দেশে করোনা ভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা চার লাখ ৩২ হাজার ৩৩৩ জন হলো।

একদিনে মারা যাওয়া ২১ জনকে নিয়ে দেশে করোনা ভাইরাসে মোট মৃতের সংখ্যা ছয় হাজার ১৯৪ জনে দাঁড়াল।

২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ, এ পর্যন্ত মোট
শনাক্তের হার ১৭ দশমিক শূন্য ১ শতাংশ।

শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮০ দশমিক ৮৫ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৩ শতাংশ।

গত একদিনে যারা মারা গেছেন, তাদের মধ্যে ১৭ জন পুরুষ আর নারী চারজন। তাদের সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও এক হাজার ৬৯৩ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন গত একদিনে।

তাতে সুস্থ রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে তিন লাখ ৪৯ হাজার ৫৪২ জন হয়েছে। বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গত ৮ মার্চ, তা ২৬ অক্টোবর চার লাখ পেরিয়ে যায়।