ধর্ষণমুক্ত সমাজ গড়ে তোলা সম্ভব, যদি…

রোমান খান
বর্তমান সমাজে ধর্ষণ একটা মারাক্তক সামাজিক ব্যাধি হিসেবে আর্বিভুত হয়েছে। ৮০ বছরের বৃদ্ধ থেকে শুরু করে ৪ বছরের বাচ্চা কেউ বাদ যাচ্ছে না এই ভয়ংকর থাবা থেকে।

সমাজের নৈতিক অবক্ষয়ের ফলে কেউ রেহাই পাচ্ছে না। এমনকি ঘর থেকে টেনে হিচঁড়ে গৃহবধুকে বের করে এনে শ্লীলতাহানীর পর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেয়ার মতো ধৃষ্টতা দেখাচ্ছে বখাটেরা।

সমাজের সর্বস্তর থেকে এই ব্যাধি থেকে বের হতে না পারলে নতুন প্রজন্মের ভবিষৎ অন্ধকার। বর্তমানে এই বিষয়টা নিয়ে অনেক আলোচনা হলেও সমাধান আসছে না।

যুব সমাজের নৈতিক অবক্ষয়ের পেছনের কারণ হলো সমাজ ব্যবস্থা। আকাশ সংস্কৃতির প্রভাবে হাতের কাছেই নষ্ট হওয়ার সব উপকরণ পাচ্ছে তারা।

মেয়েদের ভোগ্য পণ্য হিসেবে উপস্থাপন করা হচ্ছে, রাস্তাঘাটের বিভিন্ন বড় বড় বিলবোর্ডে মেয়েদের অর্ধনগ্ন ছবি ভাসছে।

অল্প বয়সেই ছেলে মেয়েরা মোবাইলে ইন্টারনেটের মাধ্যমে নীলছবি সহ যাবতীয় নৈতিক অবক্ষয়ের জিনিসগুলো দেখছে।

ধর্ষণমুক্ত সমাজ গড়তে আমাদের সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে। পরিবার থেকে শুরু করে সমাজ রাষ্ট্রের সবার গুরুত্বর্পূণ ভূমিকা পালন করতে হবে।

এক্ষেত্রে ধর্মীয় মূল্যবোধে গুরুত্ব দিতে হবে। আকাশ সংস্কৃতির প্রভাব থেকে নিজেদের মুক্ত রাখতে হবে। পারিবারিক শিক্ষায় গুরুত্বারোপ করতে হবে।

সামাজিক মূল্যবোধ জাগ্রত করতে হবে। নৈতিকতার অবক্ষয় রোধে ব্যবস্থা নিতে হবে। বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে বেড়িয়ে আসতে হবে।

রাজনৈতিক ক্ষমতার প্রভাব কাটিয়ে উঠতে হবে। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার যথাযথ নিশ্চয়তা দিতে হবে। পোষাকের শালীনতা বজায় রাখতে হবে।

প্রযুক্তির সহজলভ্যতায় এর অপব্যবহার থেকে বিরত থাকতে হবে। এসব বিষয় মেনে চলতে পারলে ধর্ষণমুক্ত সমাজ গড়ে তোলা সম্ভব বলে মনে করি।