ফাইজারের টিকা পেতে পারে বাংলাদেশ

বাংলাবাজার পত্রিকা
ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানি ফাইজারের তৈরি করা টিকা বাংলাদেশ নেবে কিনা, তা জানতে চেয়ে চিঠি দিয়েছে বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসের টিকা সরবরাহে গড়ে ওঠা প্ল্যাটফর্ম কোভ্যাক্স।

তাদের চিঠিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ ফাইজার-বায়োএনটেকের করোনা ভাইরাসের টিকা নিতে চাইলে ১৮ জানুয়ারির মধ্যে জানাতে হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম শনিবার এ তথ্য জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, কোভ্যাক্সের চিঠি শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে এসেছে।

চিঠি আসার বিষয়টি স্বাস্থ্যমন্ত্রী, সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের জানানো হয়েছে। বাংলাদেশ কোভ্যাক্সের এই টিকা নেবে বলে প্রাথমিকভাবে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, গ্যাভি এবং সংক্রামক রোগের টিকা তৈরির জন্য আন্তর্জাতিক সহযোগিতামূলক সংস্থার (সিইপিআই) নেতৃত্বে নভেল করোনা ভাইরাসের টিকা সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও বিতরণের জন্য কোভ্যাক্স গড়ে উঠেছে।

খুরশীদ আলম জানান, ৬ জানুয়ারি বাংলাদেশসহ কোভ্যাক্সের উদ্যোগের ১৯২টি সদস্য দেশকে চিঠি দেয়া হয়েছে।

জানুয়ারির শেষ নাগাদ বা ফেব্রুয়ারিতে তাদের থেকে স্বল্প সংখ্যক টিকা দেয়া হবে বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।সদস্য দেশগুলো টিকা নিতে আগ্রহী কিনা, তা আগামী ১৮ জানুয়ারির মধ্যে কোভ্যাক্সকে জানাতে হবে।

১৯ থেকে ২৮ জানুয়ারির মধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ইউনিসেফ বা গ্যাভি সংশ্লিষ্ট দেশের আগ্রহপত্র ও অবকাঠামো পরিস্থিতি মূল্যায়ন করবে।

২৯ জানুয়ারির মধ্যে টিকা বিতরণের পরিকল্পনা চূড়ান্ত করবে এবং সদস্য দেশগুলোকে জানিয়ে দেবে।