ইউএস-বাংলার নতুন গন্তব্য দুবাই

বাংলাবাজার পত্রিকা
ঢাকা: বিশ্ব পর্যটকদের জন্য অন্যতম আকর্ষণীয় শহর মধ্যপ্রাচ্যের দুবাই ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ বেসরকারী এয়ারলাইন্স ইউএস-বাংলা।

যাত্রীদের ভ্রমণ সুবিধার কথা বিবেচনা করে আগামী ১ ফেব্রয়ারি থেকে ঢাকা টু দুবাই প্রতিদিন ফ্লাইট পরিচালনা করবে ইউএস-বাংলা।

ঢাকা-দুবাই রুটে ওয়ানওয়ের জন্য সর্বনিম্ন ভাড়া ৫৪ হাজার ৯৯৯ টাকা এবং রিটার্ন ভাড়া ৭৩ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

এছাড়া দুবাই-ঢাকা রুটে ওয়ানওয়ের জন্য সর্বনিম্ন ভাড়া ১ হাজার ৬৭০ এইডি এবং রিটার্ন ভাড়া ২ হাজার ৭৫৩ এইডি নির্ধারণ করা হয়েছে।

ভাড়ায় সকল ধরনের ট্যাক্স ও সারচার্জ অন্তর্ভূক্ত। এছাড়া বিজনেস ক্লাসের জন্য ঢাকা-দুবাই রুটে ওয়ানওয়ে ৭৯ হাজার ২০০ টাকা এবং রিটার্ন ভাড়া ১ লাখ ৫৩ হাজার ৫২৬ টাকা।

অপরদিকে দুবাই-ঢাকা রুটে বিজনেস ক্লাসের ওয়ানওয়ে ভাড়া ২ হাজার ৬২০ এইডি এবং রিটার্ন ভাড়া ৪ হাজার ৪৫৩ এইডি।

প্রতি সোম, বৃহস্পতি, শুক্র ও রবিবার ঢাকা থেকে সন্ধ্যা ৬টা ৩০ মিনিটে দুবাই এর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে এবং স্থানীয় সময় রাত ১০টা দুবাই পৌঁছাবে।

আবার দুবাই থেকে স্থানীয় সময় রাত ১১টা ৩০ মিনিটে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে এবং পরদিন সকাল ৬টায় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে পৌঁছাবে।

প্রতি মঙ্গলবার ঢাকা থেকে বিকাল ৫টা ৩০ মিনিটে দুবাই এর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে এবং
নীয় সময় রাত ৯টা দুবাই পৌঁছাবে।

আবার দুবাই থেকে স্থানীয় সময় রাত ১০টা ৩০ মিনিটে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে এবং পরদিন ভোর ৫টায় ঢাকায় পৌঁছাবে।

প্রতি বুধবার ঢাকা থেকে বিকাল ৩টা ৫৫ মিনিটে দুবাই এর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে এবং স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টা ২৫ মিনিটে দুবাই পৌঁছাবে।

আবার দুবাই থেকে স্থানীয় সময় রাত ৮টা ৫৫ মিনিটে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে এবং পরদিন ভোর ৩টা ২৫ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছাবে।

এছাড়া প্রতি শনিবার ঢাকা থেকে বিকাল ৫টায় দুবাই এর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে এবং স্থানীয় সময় রাত ৮টা ৩০ মিনিটে দুবাই পৌঁছাবে।

আবার দুবাই থেকে স্থানীয় সময় রাত ৯টা ৫৫ মিনিটে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে এবং পরদিন ভোর ৪টা ২৫ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছাবে।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স খুব শীঘ্রই দুবাই ছাড়াও আবুধাবীতে ফ্লাইট পরিচালনার পরিকল্পনা রয়েছে।

পর্যটক ছাড়াও দুবাই, আবুধাবীসহ আরব আমিরাতের বিভিন্ন শহরে দশ লক্ষের অধিক প্রবাসী বাংলাদেশী রয়েছে।

বর্তমানে মধ্যপ্রচ্যের অন্যতম গন্তব্য মাস্কাট ও দোহা, প্রবাসী বাংলাদেশী অধ্যুষিত কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, প্রতিবেশী দেশ ভারতের চেন্নাই ও কলকাতা এবং চীনের অন্যতম গন্তব্য গুয়াংজুতে ফ্লাইট পরিচালনা করছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স।

চলতি বছর দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম গন্তব্য মালে ও কলম্বো রুটে ফ্লাইট শুরু করার পরিকল্পনাও রয়েছে ইউএস-বাংলার।

এছাড়া বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ সকল রুট বিশেষ করে ঢাকা থেকে কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, সিলেট, সৈয়দপুর, যশোর, রাজশাহী ও বরিশাল রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে ইউএস-বাংলা।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স এর বিমান বহরে ৪টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০, ৬টি ব্র্যান্ডনিউ এটিআর ৭২-৬০০সহ মোট তেরটি এয়ারক্রাফট রয়েছে।

খুব শীঘ্রই বহরে আরো চারটি নতুন এয়ারক্রাফট যোগ করার পরিকল্পনা রয়েছে।