শাহজাহান সরদারের সহধর্মিণী হাসিনা সরদারের কুলখানি সম্পন্ন

বাংলাবাজার পত্রিকা
ডেস্ক: দৈনিক বাংলাদেশ জার্নালের সম্পাদক শাহজাহান সরদারের সহধর্মিণী হাসিনা সরদারের কুলখানি আজ (শুক্রবার) সম্পন্ন হয়েছে।

কুলখানি উপলক্ষে নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলার নিজ গ্রাম নোয়াদিয়ার এতিমখানা মাদ্রাসায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। পরে ইফতার আয়োজন করা হয়।

এছাড়া গ্রামের বিভিন্ন মসজিদে বাদ জুম্মা মরহুমার আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া করা হয়। ঢাকার ধানমন্ডির তাকওয়া মসজিদে বাদ আসর দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

মরহুমার বড় দুই ছেলে আমেরিকায় নিজ নিজ বাসায় দোয়া ও ইফতারের আয়োজন করেন।
উল্লেখ্য, ১২ এপ্রিল রাত পৌনে ১২টায় রাজধানীর আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান হাসিনা সরদার।

তিনি বেশ কিছুদিন ধরে নানা রকম শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। তিনি ৩ ছেলে রেখে গেছেন।

হাসিনা সরদারের বড় ছেলে এস এম সাজেদুল হাসান (নাসিম) বুয়েট থেকে ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এ গ্র্যাজুয়েশন করে যুক্তরাষ্ট্র থেকে একই বিষয়ে মাস্টার্স এবং পিএইচডি সম্পন্ন করেন।

ড. নাসিম বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ শিল্পপ্রতিষ্ঠান জেনারেল ইলেক্ট্রিকের (জিই) সদরদপ্তর আলবিনিতে বিজ্ঞানী হিসেবে কর্মরত আছেন।

মেজো ছেলে এস এম শামীমুল হাসান (আজিম) ঢাকার অন্যতম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আই ইউ বি থেকে গ্র্যাজুয়েশন শেষে যুক্তরাষ্ট্র থেকে মাস্টার্স ও পিএইচডি সম্পন্ন করেছেন।

ড. আজিম বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের টেনিসিতে অবস্থিত সে দেশের অন্যতম বৃহৎ কম্পিউটার ল্যাব ওক রিজ’এ বিজ্ঞানী হিসেবে কর্মরত আছেন। তারা দু’জনই যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ভার্জিনিয়াটেক স্টেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি করেছেন।

ছোট ছেলে এস এম ফাহিম হাসান ঢাকার সরকারি সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস করেছেন।

হাসিনা সরদারের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন দৈনিক বাংলাদেশ জার্নালের প্রকাশক, আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চেয়ারম্যান ও লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনের সাংসদ ড. আনোয়ার হোসেন খান।

এছাড়া ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি, ডিইউজে এর পক্ষ থেকে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়।
এছাড়া রাজনৈতিক, সাংবাদিক, পেশাজীবী নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে শোক প্রকাশ করা হয়।