হাজী সেলিম কারাগারে

বাংলাবাজার পত্রিকা
ডেস্ক: দুর্নীতি মামলায় ১০ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত পুরান ঢাকার সংসদ সদস্য হাজী সেলিম আত্মসমর্পণ করার পর জামিন আবেদন নাকচ করে তাকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

ঢাকার ৭ নম্বর বিশেষ জজ আদালতে বিচারক শহীদুল ইসলাম রোববার হাজী সেলিমের জামিন আবেদনের শুনানি করে এই আদেশ দেন।

সংসদ সদস্য হিসেবে হাজী সেলিমকে কারাগারে ডিভিশন দেয়ার আবেদন করেছিলেন তার আইনজীবীরা। বিচারক এক্ষেত্রে কারাবিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার আদেশ দিয়েছেন।

আপিলের শর্তে বা যে কোনো শর্তে হাজী সেলিমের জামিনের পক্ষে শুনানি করেন তার আইনজীবী শ্রী প্রাণনাথ ও সাইয়েদ আহমেদ রাজা। দুদকের পক্ষে মোশাররফ হোসেন কাজল জামিনের বিরোধিতা করেন।

আসামিপক্ষের আইনজীবীরা তাকে কারাগারে ডিভিশন ও সুচিকিৎসার দাবি জানিয়ে বলেন, হাজী সেলিম মস্তিষ্কের রক্তক্ষরণে বাকশক্তি হারিয়েছেন।

শুনানি শেষে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়ে কারাবিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে জেল কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন।

এরআগে রোববার বেলা ৩টার পর হাজী সেলিম গাড়িতে করে আদালত প্রাঙ্গণে প্রবেশ করেন। তার বিপুলসংখ্যক কর্মী-সমর্থক কয়েক ঘণ্টা আগে থেকেই সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

সকাল থেকেই আদালতের প্রবেশ মুখে ও বাইরে পুলিশের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়।

দুদকের করা অবৈধভাবে সম্পদ অর্জনের যে মামলায় হাজী সেলিমের সাজা হয়েছে, সেটি দায়ের করা হয়েছিল ২০০৭ সালের ২৪ অক্টোবর, সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে জরুরি অবস্থার মধ্যে।