আরও ৭টা পদ্মা সেতু নির্মাণ করা হবে!

বাংলাবাজার পত্রিকা
সুনামগঞ্জ:পদ্মা সেতুর অর্ধেকেরও বেশি কাজ শেষ উল্লেখ করে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান বলেছেন, আগামী ৪-৫ মাসের মধ্যে পদ্মা সেতুর কাজ শেষ করে ফেলব। তিনি বলেন, একটা-দুইটা নয়, ছয়-সাতটা পদ্মা সেতু নির্মাণ করব আমরা।

আমাদের মাথার ওপরে উপগ্রহ উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্ম যেন মহাকাশে যেতে পারে-এটাই চান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আমেরিকা-রাশিয়ার মতো দেশ মহাকাশে যেতে পারলে আমরাও পারব।

সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদন হওয়ায় রোববার দুপুরে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, বাঙালিরা এখন আর মাথা নিচু করে হাঁটে না। বাঙালিরা এখন গর্বিত এবং উন্নত জাতি। সারা বিশ্বে নিজেদের পরিচয় তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছে তারা।

তিনি বলেন, চারদিকে শুধু কাজ আর কাজ। আপনি ঢাকায় যান কিংবা সিলেট, চট্টগ্রাম, রাজশাহী অথবা খুলনায় যান- দেখবেন সব জায়গায় ভাঙাগড়ার কাজ চলছে। শুনে অবাক হবেন সাগরের নিচ দিয়ে ছয় ফুট লম্বা সুড়ঙ্গ তৈরি করছি আমরা। এই প্রকল্পের অর্ধেকেরও বেশি কাজ হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, সুনামগঞ্জের উন্নয়নের ক্ষেত্রে ইতোমধ্যে মেডিকেল কলেজের কাজ শুরু হয়েছে। চলতি বছরেই সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ করব।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আমরা রেলের উন্নয়নেও কাজ করছি। ছাতক থেকে সুনামগঞ্জে নিয়ে আসব রেল। এই রেল লাইনটি শুধু সুনামগঞ্জ পর্যন্ত এসে শেষ হবে না, ময়মনসিংহ নিয়ে যাওয়ারও চিন্তা রয়েছে আমাদের।

জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হায়দার চৌধুরী লিটন ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান ইমদাদ রেজা চৌধুরীর অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল আহাদের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ-৫ আসনের এমপি মুহিবুর রহমান মানিক, সুনামগঞ্জ-২ আসনের এমপি জয়া সেনগুপ্তা, সুনামগঞ্জ-১ আসনের এমপি ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, সুনামগঞ্জ-৪ আসনের এমপি পীর ফজলুর মিসবাহ, সংরক্ষিত আসনের এমপি শামীমা শাহরিয়ার, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান, সিনিয়র সহসভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল হুদা মুকুট, সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন, সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত ও সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খায়রুল হুদা চপল প্রমুখ।