আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ‘গোয়েন্দাগিরি’

বাংলাবাজার পত্রিকা
ঢাকা: ঢাকায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে ১৮তম ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। রেইনবো ফিল্ম সোসাইটির আয়োজনে এই উৎসব ১১-১৯ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে। ৯ দিনব্যাপী এই আয়োজনে অংশ নিচ্ছে ৭৪টি দেশের ২২০টি চলচ্চিত্র। এই উৎসবে দেখানো হবে নাসিম সাহনিক পরিচালিত পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা চলচ্চিত্র ‘গোয়েন্দাগিরি’।

চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করেছে আম্মাজান ফিল্মস এবং চলচ্চিত্রটির ডিজিটাল পার্টনার হিসেবে আছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম। চলচ্চিত্রটিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন শম্পা হাসনাইন, কল্যাণ কোরাইয়া, মিম চৌধুরি, সীমান্ত আহমেদ, কচি খন্দকার, তারেক মাহমুদ, টুটুল চৌধুরি, শিখা খান, তানিয়া বৃষ্টি, ইশরাত চৈতি, প্রিন্স প্রমুখ। এই আয়োজনের ভেন্যুগুলো হলো আলিয়স ফ্রান্সিস ঢাকা, ঢাকা শিশু একাডেমি, ঢাকা শিল্পকলা একাডেমি, ঢাকা জাতীয় জাদুঘর অডিটোরিয়াম।

গোয়েন্দাগিরির গল্পে দেখা যায়, একদল টিনএজ ছেলেমেয়ে ছুটিতে বেড়াতে যাচ্ছে। তাদের একটি বিশেষ পরিচয় হচ্ছে তারা স্বপ্ন দেখে যে ভবিষ্যতে বড় গোয়েন্দা হবে। তাদের কারও আইডল শার্লক হোমস, কারও ফেলুদা, কারও তিন গোয়েন্দা, কারও আবার জেমস বন্ড।

তাদের অভিযানটা শুরুর পর মিডিয়াতে একটি পুরনো ভুতুড়ে বাড়ি নিয়ে হইচই পরে যায়। বনের মধ্যে অবস্থিত বাড়িটি নাকি অভিশপ্ত। অভিশপ্ত এই বাড়ির রহস্য উন্মোচনে ঝাঁপিয়ে পড়ে এই শখের গোয়েন্দারা। তাদের এই অভিযানে রহস্যের স্বাদ যেমন পাওয়া যাবে তেমনি পাওয়া যাবে টিনএজ খুনসুটি, টিনএজ রোমান্টিসিজম আরও কত কি!

‘গোয়েন্দাগিরি’ চলচ্চিত্র নিয়ে নির্মাতা নাসিম সাহনিক বাংলাবাজার পত্রিকাকে বলেন, ‘বেশ প্রস্তুতি নিয়ে ‘গোয়েন্দাগিরি’ নির্মাণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ‘গোয়েন্দাগিরি’ চলচ্চিত্রের আন্তর্জাতিক প্রিমিয়ার হওয়ায় ভালো লাগছে। তার মতে, এর মাধ্যমে দেশবিদেশের দর্শকের কাছে ‘গোয়েন্দাগিরি চলচ্চিত্রটি পৌছে যাবে।

নাসিম সাহনিক বলেন, ‘গোয়েন্দাগিরি হচ্ছে শখের গোয়েন্দাদের কাহিনী। বেশ সময় নিয়ে এই চলচ্চিত্রটির চিত্রনাট্যের কাজ করা হয়। ধীরে ধীরে এর নির্মাণ প্রক্রিয়া এগিয়ে চলে উল্লেখ করে নাসিম বলেন, শুটিংএ ব্যবহার করা হয় বৈচিত্র্যময় লোকেশন।

প্রযোজক মামুনুর ইসলাম বাংলাবাজার পত্রিকাকে বলেন, ‘আম্মাজান ফিল্ম সিনেমা দর্শকদের জন্য রুচিশীল ও আকর্ষণীয় চলচ্চিত্র উপহার দিতে চায়। সেই প্রয়াস থেকেই নির্মাণ করা হয়েছে ‘গোয়েন্দাগিরি’ চলচ্চিত্রটি। চলচ্চিত্রটি শিশুকিশোরদের জন্য একটি অসাধারণ নির্মাণ।

এই চলচ্চিত্রটি বড়দেরকেও শৈশবে ফিরিয়ে নিয়ে যাবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমি আনন্দিত যে ১৮ তম ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ‘গোয়েন্দাগিরি’ চলচ্চিত্রের আন্তর্জাতিক প্রিমিয়ার হচ্ছে।

চলচ্চিত্রে অন্যতম চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিম চৌধুরি। ‘ম্যাংগোলি চ্যানেল আই সেরা নাচিয়ে’র উপস্থাপিকা হিসেবে আলোচনায় আসেন মিম চৌধুরি। এরপর শাকিব খানের সঙ্গে ‘লাভ এক্সপ্রেস’ ও সরকারি অনুদানের ছবি ‘সুতপার ঠিকানা’ নামে দু’টি ছবিতে অভিনয় করে দারুণ প্রশংসিত হন মিম।

এ বিষয়ে বাংলাবাজার পত্রিকাকে মিম বলেন, ছবিটির শুটিং এবং ডাবিংয়ের সময় বেশ মজা হয়েছিল। মিডিয়া অযান্ত্রিক অফিসে বেশ আনন্দের সাথেই আমরা ডাবিং করেছি।

তিনি বলেন, ‘বড়পর্দায় কাজের অনেক অফার থাকলেও করা হয়নি। কিন্তু ‘গোয়েন্দাগিরি’ ছবিটির কাহিনী একেবারেই আলাদা। হরর থ্রিলারধর্মী। এই ছবির চিত্রনাট্যকে অসাধারণ উল্লেখ করে মিম বলেন, এজন্যই কাজটি করেছি। ছবিতে আমার চরিত্রের নাম গোয়েন্দা পিংকি।

পিংকি অনেকটা জনপ্রিয় কমিক ক্যারাকটের ‘পিংকি’র মতো। বেশ চঞ্চল একটা মেয়ে। সারাক্ষণ ফেসবুকিং আর গসিপিং নিয়ে থাকে। সিডনী শেলডন আর শার্লক হোমসের ফ্যান সে। ১৮ তম ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ‘গোয়েন্দাগিরি’ চলচ্চিত্রের আন্তর্জাতিক প্রিমিয়ার হচ্ছে জেনে আমি অভিভূত।

মিম বলেন, চলচ্চিত্রটিতে হরর ও সায়েন্স ফিকশনের উপাদানও রয়েছে। তাই ডিটেকটিভ থ্রিলারধর্মী এই চলচ্চিত্রটি তরুণ প্রজন্মকে বেশ আকৃষ্ট করবে। এটির চিত্রনাট্য আমার কাছে অসাধারণ লেগেছে। এই চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে পেরে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি।

গোয়েন্দাগিরি চলচ্চিত্রে শখের গোয়েন্দা চরিত্রে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়িকা শম্পা হাসনাইন। সুপার হিরো সুপার হিরোইনখ্যাত এই নায়িকা চলচ্চিত্রটির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার প্রসঙ্গে বাংলাবাজার পত্রিকাকে বলেন, ১৮ তম ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ‘গোয়েন্দাগিরি’ চলচ্চিত্রের আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী হতে যাচ্ছে জেনে আমি ভীষণ আনন্দিত।

তিনি বলেন, চলচ্চিত্রটিতে আমি শখের গোয়েন্দা থাকি। আমাকে মেধাবী ছাত্রী হিসেবে উপস্থাপন করা হয়েছে। আমার গণিতের দক্ষতায় সকলে মুগ্ধ হয়। আশা রাখি দশর্ক চলচ্চিত্রটি দেখে আনন্দিত হবেন।

অভিনেতা কচি খন্দকার বাংলাবাজার পত্রিকাকে বলেন, দারুণ একটি গল্প নিয়ে নির্মাতা চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেছেন। আমার চরিত্রটিও ছিল রহস্যে পরিপূর্ণ।

তিনি বলেন, দর্শক বেশ উত্তেজনা নিয়েই চলচ্চিত্রটি উপভোগ করবেন। ১৮ তম ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ‘গোয়েন্দাগিরি’ চলচ্চিত্রের আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী হওয়ায় দেশে ও দেশের বাইরে বাংলা চলচ্চিত্রপ্রেমীরা চলচ্চিত্রটি উপভোগ করার সুযোগ পাবে।’

বেশ কয়েকটি সেকশন রয়েছে এই চলচ্চিত্র উৎসবে। এগুলো হলো এশিয়ান সিনেমা সেকশন, বাংলাদেশ পানোরমা সেকশন, সিনেমা অব দি ওয়ার্ল্ড সেকশন, চিলড্রেন ফিল্মস সেকশন, উইমেন ফিল্মমেকারস সেকশন, শর্ট এন্ড ইনডিপেনডেন্ট ফিল্মস সেকশন, স্পিরিচুয়াল ফিল্ম সেকশন প্রভৃতি। উৎসব পরিচালক হিসেবে আছেন রেইনবো ফিল্ম সোসাইটির প্রেসিডেন্ট আহমেদ মোস্তফা জামাল।

প্রতিবারের মতো ‘বেটার ফিল্ম, বেটার অডিয়েন্স, বেটার সোসাইটি’ এই থিমকে মাথায় রেখে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এবারের ১৮তম ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। ফেসবুকে রেইনবো ফিল্ম সোসাইটির অফিসিয়াল পেজে এই উৎসবের নিয়মিত আপডেট জানানো হচ্ছে।

১২ জানুয়ারি জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তনের মূল অডিটোরিয়ামে সকাল ১০.৩০ মিনিটে গোয়েন্দাগিরি চলচ্চিত্রটি দর্শক উপভোগ করতে পারবেন।