শুক্রবার, ১২ এপ্রিল, ২০২৪

অনির্দিষ্টকালের বন্ধের নোটিশ,দুশ্চিন্তায় বাড়ি ফিরছেন শ্রমিকরা

অনির্দিষ্টকালের বন্ধের নোটিশ,দুশ্চিন্তায় বাড়ি ফিরছেন শ্রমিকরা

পোশাক খাতে চলমান শ্রমিক অসন্তোষের মুখে আশুলিয়ায় বেশ কিছু কারখানা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। কারখানায় কাজ না করা, ভাংচুরসহ কয়েকটি কারণ দেখিয়ে শ্রম আইনের ২০০৬ এর ১৩(১) ধারায় এ সিদ্ধান্ত নেয় কারখানা কর্তৃপক্ষ। শ্রমিকরা সকালে কারখানার সামনে এসে বন্ধের নোটিশ দেখে ফিরে যান। শনিবার (১১ নভেম্বর) সকাল থেকে  আশুলিয়ার কাঠগড়া,জামগড়া,নরসিংহপুরসহ কয়েকটি এলাকার কারখানার সামনে নোটিশ ঝুলিয়ে রাখে কারখানার কতৃপক্ষ।

কয়েকজন শ্রমিকের সাথে কথা বলে জানা যায়, নূন্যতম মজুরী সাড়ে ১২ হাজার টাকা অনেকে মানছেন না। আবার যাদের মজুরী নূন্যতমের উপরে ছিল তাদের ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত না আসায় তারাও বিক্ষুদ্ধ। 

পোশাক শ্রমিক বিল্লাল হোসেন বলেন,  সকালে কারখানার সামনে এসে দেখি কারখানার বন্ধ পরে নোটিশ দেখেছি।  টাকা-পয়সার সিদ্ধান্ত না নিয়ে এভাবে অনির্দিষ্টকালের জন্য ফ্যাক্টরি বন্ধ করে দিচ্ছে এতে তো আমাদের সবারই ক্ষতি হচ্ছে। কোন প্রকার ঝামেলার প্রয়োজন নেই। সরকার সুষ্ঠু একটা সমাধান করে দিক। হেলপারদের বেতনের যে সিদ্ধান্ত দিয়েছে তাতে আমরা সন্তোষ  কিন্তু আয়রনম্যান, অপারেটর, কোয়ালিটি এদের তো কারও কথা বলেনাই। এজন্যেই তো সমস্যা।

ঢাকা শিল্প পুলিশ-১ এর পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ সারোয়ার আলম জানান, কিছু বন্ধ কারখানাগুলোতে শ্রমিকরা চলে যান এবং বিশৃঙ্খলা তৈরি করেন। এমন ১০০টির মতো কারখানা অনির্দিষ্ট কালের জন্য শ্রম আইনে ১৩ এর ১ ধারায় বন্ধ রয়েছে। তবে সাভার, আশুলিয়া ও ধামরাই মিলে এখানে এক হাজার ৭৯২টি কারখানার ভেতর ১৩০টি কারখানা বন্ধ রয়েছে। এর মধ্যে কিছু কিছু কারখানা সাধারণ ছুটি ছিল এগুলো আগামীকাল খুলে দেবে।  


সম্পাদক : জোবায়ের আহমেদ