মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

আশুলিয়ায় নিজ ফার্মে ঠিকাদারের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

আশুলিয়ায় নিজ ফার্মে ঠিকাদারের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

সাভারের আশুলিয়ায় নিজ ডেইরি ফার্মে কাজিম উদ্দিন (৫৬) নামে এক ঠিকাদারকে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। বুধবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) আশুলিয়ার ডেন্ডাবর এলাকায় বসতবাড়ি সংলগ্ন খামারের একটি কক্ষ থেকে তাঁর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। 

নিহত কাজিম উদ্দিন স্থানীয় ওয়াজ উদ্দিনের ছেলে। তিনি পেশায় ব্যবসায়ী ও পল্লী বিদ্যুত সমিতির ঠিকাদার ছিলেন।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, প্রায় রাতে বাড়ির পেছনে খামারের একটি ঘরে থাকতেন কাজিম উদ্দিন। সেই ঘরের তালার একটি চাবি নিহতের কাছে ও আরেকটি তার স্ত্রীর কাছে ছিল। সকালে নিহতের স্ত্রী দরজার তালা খুলে ভিতরে ঢুকে বিছানার ওপরে স্বামীর মরদেহ দেখতে পায়। এসময় নিহতের গলায় ধারালো অস্ত্রের জখম ছিল। পুলিশকে অবহিত করলে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহতের ভাই গুল বাহাদুর বলেন, ‘দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা ১৯ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী তৌহিদ জং মুরাদের ঈগল মার্কার কর্মি ছিলো আমার ভাই এবং আমরাও একই প্রার্থীকে সমর্থন করেছি।এই নিয়ে আমাগো এলাকায় আনোয়ার ইমন এর সাথে আমার ভাইয়ের বিরোধ সৃষ্টি হয়। তারা আমার ভাই কে একাধিকবার হত্যার হুমকি দিয়েছিল। সেই জের হিসেবে এই হত্যার ঘটনা ঘটতে পারে বলে আমাদের সন্দেহ হয়।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমার ভাই একজন ব্যবসায়ী ছিলেন তার সাথে কারও কোন শত্রুতা ছিল না। জাতীয় নির্বাচন নিয়ে ঝগড়া হয়েছে।’

এঘটনার পর এলাকা জুড়ে আতঙ্ক ও শোকের ছায়া নেমে এসেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ সিআইডি র‌্যাব সহ প্রশাসনের বিভিন্ন সংস্থা গিয়ে তদন্ত করছে। সিআইডির তদন্তের পর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে।

নিহতের বড় ছেলে বলেন, ‘গত কিছুদিন থেকে আমার বাবা কোন বিষয় নিয়ে আতঙ্কিত ছিলো। গত কাল আমাদের পুরানো বাড়িতে ফার্মের রুমে ছিলো তিনি। দুর্বৃত্তরা তাকে পরিকল্পিতভাবে বাসায় ঢুকে হত্যা করেছে।’

আশুলিয়া থানার ওসি এএফএম সায়েদ বলেন, ‘নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। প্রাথমিক সুরতহালে দেখা গেছে নিহতের গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তদন্ত করে দ্রুতই হত্যাকান্ডের রহস্য খুঁজে বের করে অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা হবে।’



সম্পাদক : জোবায়ের আহমেদ