শুক্রবার, ১২ এপ্রিল, ২০২৪

রোজার আগে উপজেলা নির্বাচন

রোজার আগে উপজেলা নির্বাচন

❏ ফেব্রুয়ারিতে সংরক্ষিত নারী আসনের ভোট

রোজা শুরুর আগে প্রথম ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ। মঙ্গলবার বিকেলে আগারগাঁওয়ে ইসি ভবনে তিনি এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, কমিশনের অনুমোদনক্রমে রোজা শুরুর আগেই উপজেলা পরিষদের প্রথম ধাপের ভোট হতে পারে। আগামী ১০ মার্চ পবিত্র মাহে রমজান শুরু হবে।

ইসির এ সচিব বলেন, উপজেলার তালিকা পেয়েছি। সেই অনুযায়ী কমিশন প্রস্তুত আছে। কমিশন সিদ্ধান্ত নিলে যেকোনো সময় উপজেলা পরিষদ নির্বাচন তফসিল ঘোষণা হতে পারে। রোজা শুরু হওয়ার আগে হয়ত হতে পারে।  তিনি আরও বলেন, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনযোগ্য হয়েছে ৪৮৫টি, এ রকম তালিকা পেয়েছি। ইনফ্যাক্ট সবই তো নির্বাচনযোগ্য, কারণ ২০১৮ সালের মার্চের দিকে নির্বাচন হয়েছিল। এসএসসি পরীক্ষা, রোজাসহ সব কিছু বিবেচনা করব। আমাদের দেশে রোজায় নির্বাচন কম হওয়ার প্রচলন আছে। সে ক্ষেত্রে হয়ত প্রথম ধাপের নির্বাচন রোজার আগে হতে পারে, দ্বিতীয় ধাপ ঈদের পরে হতে পারে।

এদিকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদের ৫০টি সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচন আগামী ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।  এ বিষয়ে অশোক কুমার দেবনাথ বলেন, সংসদ সচিবালয় থেকে সংসদ সদস্যদের তালিকা, যারা ভোটার হবেন তাদের তালিকা আমরা পেয়েছি। ভোটার তালিকা যেভাবে প্রকাশিত হয় সেভাবে খসড়া তালিকা প্রকাশ হবে। প্রকাশ হওয়ার পর যদি কোনো আপত্তি না থাকে, তবে এটিই হবে চূড়ান্ত ভোটার তালিকা। পরবর্তীতে কমিশনের অনুমোদনক্রমে তফসিল ঘোষণা হবে। তারপর নির্বাচনের প্রয়োজন হলে হবে, আর না হলে হবে না।

তফসিল ঘোষণা নিয়ে ইসি অতিরিক্ত সচিব বলেন, আগামী সপ্তাহে আমরা এই প্রস্তাবনা কমিশনে উঠাবো। কমিশন অনুমোদন দিলে তফসিল ঘোষণা হবে। আগামী সপ্তাহে তফসিল হলে ফেব্রুয়ারিতে ভোট হবে।

৬২ জন স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যের ক্ষেত্রে সংরক্ষিত আসনের বণ্টন কীভাবে হবে, জানতে চাইলে এই কর্মকর্তা বলেন- এটি রাজনৈতিক দলের সিদ্ধান্তে হবে। কীভাবে হবে এ ব্যাপারে কমিশনের তেমন কোনো বক্তব্য নেই। আমরা রাজনৈতিক দলগুলোকে চিঠি দেবো, দলগুলো কোটা অনুযায়ী কতটি পাবে সে ব্যাপারে বলে দেওয়া হবে।

স্বতন্ত্ররা যদি এক না হয় তাহলে তার সমাধান কীভাবে হবে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন- আমরা রাজনৈতিক দলকে চিঠি দেবো, স্বতন্ত্রদের নয়। স্বতন্ত্রদেরটা কীভাবে হবে, সেটি পরে দেখা যাবে। এই মুহূর্তে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেওয়া যাচ্ছে না। 

জোট করা ছাড়া স্বতন্ত্রদের আসন বণ্টন নিয়ে অশোক কুমার বলেন, এটা কঠিন হবে। স্বতন্ত্রদের সিদ্ধান্ত নিয়েই তা করা হবে। এটি পলিটিক্যাল বিষয়, এই বিষয়ে আমাদের সিদ্ধান্ত দেওয়ার কিছু নাই।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে আমরা এখনও কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের উপ-নির্বাচনের বিষয়ে কোনো চিঠি পাইনি। আর উপজেলার তালিকা পেয়েছি। এই নির্বাচনের জন্য কমিশন সচিবালয় প্রস্তুত রয়েছে। কমিশন সিদ্ধান্ত দিলে উপজেলা পরিষদের তফসিল ঘোষণা হতে পারে।

সম্পাদক : জোবায়ের আহমেদ