মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

প্রতি ঘণ্টায় দুজন মায়ের মৃত্যু হচ্ছে গাজায়: জাতিসংঘ

প্রতি ঘণ্টায় দুজন মায়ের মৃত্যু হচ্ছে গাজায়: জাতিসংঘ

ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরাইলের নির্বিচার হামলার তিন মাস পেরিয়েছে। হামলা-সংঘাতে প্রতিদিনই গাজায় প্রাণ যাচ্ছে বহু মানুষের। সবচেয়ে বেশি আঘাত এসেছে নারী ও শিশুদের ওপর। জাতিসংঘের নারীবিষয়ক সংস্থা ইউএনওমেন জানিয়েছে, গাজায় প্রতি ঘণ্টায় দুজন মা প্রাণ হারাচ্ছেন।

ইউএনওমেন শুক্রবার সতর্ক করে বলেছে, গাজায় এখন যা ঘটছে সেসবের ভয়াবহ মানসিক আঘাত (ট্রমা) ফিলিস্তিনিদের প্রজন্মান্তরে বইতে হবে। ইসরায়েলের হামলায় সেখানে প্রতি এক ঘণ্টায় দুজন মায়ের মৃত্যু হচ্ছে। ইউএনওমেনের বরাত দিয়ে এপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গাজায় তিন মাসের বেশি সময় ধরে চলা হামলায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত নারী-শিশুরা। প্রায় ১৬ হাজার নারী-শিশুর প্রাণ গেছে। গাজায় অন্তত ৩ হাজার নারী বিধবা হয়েছেন। প্রায় ১০ হাজার শিশু বাবা হারিয়েছে।

ইউএনওমেন আরও জানিয়েছে, গাজার ২৩ লাখ বাসিন্দার মধ্যে ১৯ লাখ হামলার জেরে বাস্তুচ্যুত হয়েছে। সেখানকার প্রায় ১০ লাখ নারী-মেয়েশিশু আশ্রয় ও নিরাপত্তা খুঁজছে। গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে হামলা চালায় ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস। এতে নিহত হন ১ হাজার ১০০-এর বেশি মানুষ। জিম্মি করা হয় প্রায় আড়াই শ মানুষকে।

ওই দিনই গাজায় পাল্টা হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। উপত্যকাজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে সর্বাত্মক যুদ্ধ, যা এখনো চলছে। হামাস নিয়ন্ত্রিত গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য, ইসরায়েলি হামলায় এখন পর্যন্ত ২৪ হাজার ৭০০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন।

সম্পাদক : জোবায়ের আহমেদ