মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই, ২০২৪

বাঁধ ভেঙে মধ্য চীনে বন্যা

বাঁধ ভেঙে মধ্য চীনে বন্যা

চীনের মধ্যাঞ্চলে বাঁধ ভাঙার কারণে সৃষ্ট আকস্মিক বন্যা ঠেকাতে কর্মকর্তারা শনিবার সেখানে ছুটে যান। রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম এ কথা জানিয়েছে। এশিয়ার এই দেশটি গ্রীষ্মকালীন চরম আবহাওয়ার সাথে লড়াই করছে।

রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়া জানিয়েছে, শুক্রবার বিকেলে চীনের মধ্যাঞ্চলীয় হুনান প্রদেশের ডংটিং  হ্রদের তীরে একটি বাঁধের অংশ ভেঙ্গে গেছে।  

রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারকারী সিসিটিভি জানায়, তাৎক্ষণিকভাবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি, তবে ২২৬ মিটার (৭৪০-ফুট) বাঁধ ভেঙ্গে যাওয়ায় প্রায় ৬ হাজার লোককে কাছাকাছি এলাকা থেকে সরে যেতে বাধ্য করেছে।

একটি ফুটেজে দেখা যায়, হ্রদের পানি বাঁধের একটি বিশাল অংশ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। কৃষিজমি প্লাবিত হচ্ছে এবং গ্রামের বাড়িঘরের ছাদ ডুবে যাচ্ছে।

দেশটির রোড মনিটরিং সেন্টার শনিবার বলেছে, হুনানের হুয়ারং কাউন্টিতে প্রায় অর্ধ মিলিয়ন লোকের বসবাস। ‘বন্যা প্রতিরোধের প্রয়োজনে সমস্ত রাস্তায় ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা হয়েছে’।

কেন্দ্র সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ওয়েইবোতে একটি বিবৃতিতে বলেছে, ‘নিয়ন্ত্রণের সময়কালে, বন্যা প্রতিরোধে সহায়তাকারী যানবাহনগুলো ব্যতীত অন্য যানবাহনের চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে।’

সিনহুয়া শনিবার জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ‘মানুষের জীবন ও সম্পত্তি রক্ষার জন্য সর্বাত্মক উদ্ধার ও ত্রাণ কাজের আহ্বান জানিয়েছেন’।

জরুরী ব্যবস্থাপনা মন্ত্রনালয় জানায়,বাঁধের ভাঙন রোধে এবং ত্রাণ কাজে সহায়তা করার জন্য  ৮শ’ জনেরও বেশি লোক প্রায় ১৫০টি যানবাহন এবং কয়েক ডজন নৌকা ব্যবহার করছে।  

অর্থ ও জরুরী ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে সিসিটিভি জানায়, কেন্দ্রীয় সরকার হুনান এবং অন্যান্য দুর্যোগ-কবলিত এলাকার জন্য ত্রাণ তহবিলের জন্য অতিরিক্ত ৫৪০ মিলিয়ন ৭৪ মিলিয়ন ইউয়ান বরাদ্দ করেছে।

সম্পাদক : জোবায়ের আহমেদ নবীন